০৪:০৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চুয়াডাঙ্গায় মাদক ব্যবসায়ীর গাঁজা চুরি নিয়ে দ্বন্ধ, ৩ জনকে কুপিয়ে জখম

আহতরা হলেন, সাতগাড়ি গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের দুই ছেলে নাঈম (২৭) ও নয়ন (২৫), একই এলাকার মনি মিয়ার ছেলে বিপ্লব হোসেন (২২)।

স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, স্থানীয় এক মাদক ব্যবসায়ী তার বাড়ির পাশে একটি ভুট্টা ক্ষেতে গাঁজা লুকিয়ে রাখেন। সেখান থেকে কেউ চুরির করে নাঈমের কাছে দেয়। বিষয়টি জানাজানি হলে মাদক ব্যবসায়ীর সঙ্গে বাকবিতণ্ডা হয় নাঈমের।

একপর্যায়ে দুপক্ষ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মারামারিতে জড়িয়ে পড়েন। এতে ধারাল অস্ত্রের আঘাতে বিপ্লব, নয়ন ও নাঈম জখম হন। পরে স্থানীয়রা তিনজনকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. ওয়াহিদ মাহমুদ রবিন রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে বলেন, তিনজনের শরীরের বিভিন্নস্থানে ধারাল অস্ত্রের আঘাতে জখম হয়েছে। তারা আংশকামুক্ত।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইন্দ্রজিত রায় রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে বলেন, প্রাথমিকভাবে জেনেছি মাদক নিয়ে মারামারির ঘটনা ঘটেছে।

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

জনপ্রিয়

অনির্দিষ্টকালের জন্য দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা

চুয়াডাঙ্গায় মাদক ব্যবসায়ীর গাঁজা চুরি নিয়ে দ্বন্ধ, ৩ জনকে কুপিয়ে জখম

প্রকাশের সময় : ০৮:৪৭:৪২ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩০ মার্চ ২০২৪

আহতরা হলেন, সাতগাড়ি গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের দুই ছেলে নাঈম (২৭) ও নয়ন (২৫), একই এলাকার মনি মিয়ার ছেলে বিপ্লব হোসেন (২২)।

স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, স্থানীয় এক মাদক ব্যবসায়ী তার বাড়ির পাশে একটি ভুট্টা ক্ষেতে গাঁজা লুকিয়ে রাখেন। সেখান থেকে কেউ চুরির করে নাঈমের কাছে দেয়। বিষয়টি জানাজানি হলে মাদক ব্যবসায়ীর সঙ্গে বাকবিতণ্ডা হয় নাঈমের।

একপর্যায়ে দুপক্ষ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মারামারিতে জড়িয়ে পড়েন। এতে ধারাল অস্ত্রের আঘাতে বিপ্লব, নয়ন ও নাঈম জখম হন। পরে স্থানীয়রা তিনজনকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. ওয়াহিদ মাহমুদ রবিন রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে বলেন, তিনজনের শরীরের বিভিন্নস্থানে ধারাল অস্ত্রের আঘাতে জখম হয়েছে। তারা আংশকামুক্ত।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) ইন্দ্রজিত রায় রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে বলেন, প্রাথমিকভাবে জেনেছি মাদক নিয়ে মারামারির ঘটনা ঘটেছে।