০৩:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চুয়াডাঙ্গায় ২৪ বোতল ফেনসিডিলের মামলা : আকন্দবাড়িয়া জাহিরাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) চুয়াডাঙ্গা অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ-১ আদালতের বিচারক মো. হুমায়ুন কবির সরকার আসামির উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন। বিকেলে তাকে পুলিশ প্রহরায় চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে নেওয়া হয়।

সাজাপ্রাপ্ত জাহিরা বেগম চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার আকন্দবাড়িয়া গ্রামের ঈদগাপাড়ার শাহজাহান মোল্লার স্ত্রী।

মামলার বিবরণ সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালে ১১ জুলাই চুয়াডাঙ্গা জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল জাহিরা বেগমের বাড়িতে অভিযান চালায়। একটি কক্ষ থেকে ২৪ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়।

ঘটনার দিনই জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আমির আব্বাস বাদী হয়ে জাহিরা বেগমের নাম উল্লেখ করে দামুড়হুদা মডেল থানায় মামলা করেন।

দীর্ঘ তদন্তের মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা আদালতে চার্জশিট দেন। এরপর বৃহস্পতিবার দশজন সাক্ষীর মধ্য সাতজনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বিচারক মো. হুমায়ুন কবির সরকার আসামির উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন।

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

জনপ্রিয়

অনির্দিষ্টকালের জন্য দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা

চুয়াডাঙ্গায় ২৪ বোতল ফেনসিডিলের মামলা : আকন্দবাড়িয়া জাহিরাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

প্রকাশের সময় : ০২:১৬:১২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ মার্চ ২০২৪

বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) চুয়াডাঙ্গা অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ-১ আদালতের বিচারক মো. হুমায়ুন কবির সরকার আসামির উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন। বিকেলে তাকে পুলিশ প্রহরায় চুয়াডাঙ্গা জেলা কারাগারে নেওয়া হয়।

সাজাপ্রাপ্ত জাহিরা বেগম চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার আকন্দবাড়িয়া গ্রামের ঈদগাপাড়ার শাহজাহান মোল্লার স্ত্রী।

মামলার বিবরণ সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালে ১১ জুলাই চুয়াডাঙ্গা জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল জাহিরা বেগমের বাড়িতে অভিযান চালায়। একটি কক্ষ থেকে ২৪ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়।

ঘটনার দিনই জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আমির আব্বাস বাদী হয়ে জাহিরা বেগমের নাম উল্লেখ করে দামুড়হুদা মডেল থানায় মামলা করেন।

দীর্ঘ তদন্তের মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা আদালতে চার্জশিট দেন। এরপর বৃহস্পতিবার দশজন সাক্ষীর মধ্য সাতজনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বিচারক মো. হুমায়ুন কবির সরকার আসামির উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন।