০৪:৫২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

( ভিডিও): চুয়াডাঙ্গায় পুতে ফেলা হলো প্রায় ১ মন মুরগির মাংস

চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে নিত্যপ্রয়োজনীয় প্রয়োজনীয় পন্যের দোকানে অভিযান চালিয়েছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ চুয়াডাঙ্গা অধিদপ্তর। এসময় ফ্রিজে অস্বাস্থ্যকর মাংস সংরক্ষণসহ নানা অনিয়মের অভিযোগে এক মুরগি ব্যবসায়ীকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

শনিবার (২৩ মার্চ) দুপুরে জেলার জীবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়ীয়া বাজারে অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা করেন চুয়াডাঙ্গা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. সজল আহমেদ।

অভিযান সুত্রে জানা গেছে, নিয়মিত বাজার তদারকির অংশ হিসেবে শনিবার আন্দুলবাড়ীয়া বাজারে অভিযান চালানো হয়। এসময় মেসার্স মিম পোল্ট্রি হাউস নামক মুরগীর একটি পাইকারি প্রতিষ্ঠান তদারকিকালে ভাউচার কারসাজি ও ক্রয়-বিক্রয় ভাউচার যথাযথভাবে সংরক্ষণ না করা, প্রতিষ্ঠানে মূল্যতালিকা প্রদর্শন না করা ও ফ্রিজে অস্বাস্থ্যকরভাবে মাংস সংরক্ষণ করার প্রমাণ মেলে।

এসব অপরাধে প্রতিষ্ঠানটির মালিক মাহমুদুর রহমানকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৩৮, ৪৩ ও ৪৫ ধারায় ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এসময় বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে ফ্রিজে অস্বাস্থ্যকরভাবে সংরক্ষিত প্রায় ১ মণ মুরগীর মাংস মাটিতে পুতে নষ্ট করা হয়। পরবর্তীতে মাছের আড়ত, খুচরা বাজার ও তরমুজের প্রতিষ্ঠান তদারকি করা হয় এবং সবাইকে পুরাতন দাঁড়িপাল্লার বদলে ডিজিটাল স্কেল ব্যবহার, ন্যায্যমূল্যে পণ্য ক্রয় বিক্রয়, ভাউচার সংরক্ষণ ও মুল্যতালিকা প্রদর্শন করতে বলা হয়। সচেতনতামুলক লিফলেট বিতরণ করা হয়।

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

জনপ্রিয়

অনির্দিষ্টকালের জন্য দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা

( ভিডিও): চুয়াডাঙ্গায় পুতে ফেলা হলো প্রায় ১ মন মুরগির মাংস

প্রকাশের সময় : ০৭:৩১:০১ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৩ মার্চ ২০২৪

চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে নিত্যপ্রয়োজনীয় প্রয়োজনীয় পন্যের দোকানে অভিযান চালিয়েছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ চুয়াডাঙ্গা অধিদপ্তর। এসময় ফ্রিজে অস্বাস্থ্যকর মাংস সংরক্ষণসহ নানা অনিয়মের অভিযোগে এক মুরগি ব্যবসায়ীকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

শনিবার (২৩ মার্চ) দুপুরে জেলার জীবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়ীয়া বাজারে অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা করেন চুয়াডাঙ্গা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. সজল আহমেদ।

অভিযান সুত্রে জানা গেছে, নিয়মিত বাজার তদারকির অংশ হিসেবে শনিবার আন্দুলবাড়ীয়া বাজারে অভিযান চালানো হয়। এসময় মেসার্স মিম পোল্ট্রি হাউস নামক মুরগীর একটি পাইকারি প্রতিষ্ঠান তদারকিকালে ভাউচার কারসাজি ও ক্রয়-বিক্রয় ভাউচার যথাযথভাবে সংরক্ষণ না করা, প্রতিষ্ঠানে মূল্যতালিকা প্রদর্শন না করা ও ফ্রিজে অস্বাস্থ্যকরভাবে মাংস সংরক্ষণ করার প্রমাণ মেলে।

এসব অপরাধে প্রতিষ্ঠানটির মালিক মাহমুদুর রহমানকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৩৮, ৪৩ ও ৪৫ ধারায় ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এসময় বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে ফ্রিজে অস্বাস্থ্যকরভাবে সংরক্ষিত প্রায় ১ মণ মুরগীর মাংস মাটিতে পুতে নষ্ট করা হয়। পরবর্তীতে মাছের আড়ত, খুচরা বাজার ও তরমুজের প্রতিষ্ঠান তদারকি করা হয় এবং সবাইকে পুরাতন দাঁড়িপাল্লার বদলে ডিজিটাল স্কেল ব্যবহার, ন্যায্যমূল্যে পণ্য ক্রয় বিক্রয়, ভাউচার সংরক্ষণ ও মুল্যতালিকা প্রদর্শন করতে বলা হয়। সচেতনতামুলক লিফলেট বিতরণ করা হয়।