০৫:২২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চুয়াডাঙ্গায় ১ ঘন্টার বিশেষ অভিযানে ১৫ জনকে জরিমানা

  • হুসাইন মালিক
  • প্রকাশের সময় : ০৫:১২:০৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪
  • ৩৭ বার

আজ রবিবার (১৬ জুন) দুপুরে জেলা শহরের শহীদ হাসান চত্বর, কোর্ট মোড় ও কবরী রোডসহ গুরুত্বপূর্ণ সব পয়েন্টে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক ড. কিসিঞ্জার চাকমা ও পুলিশ সুপার আর এম ফয়জুর রহমানের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালিত হয়। ১ ঘন্টার অভিযানে ১৫ জনকে হেলমেট, সঠিক কাগজপত্র না থাকাসহ বিভিন্ন অপরাধে ২১ হাজার জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

জেলা প্রশাসক ড কিসিঞ্জার চাকমা রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে বলেন, পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক টাস্কফোর্স ও ভিজিল্যান্স টিম জেলা পুলিশ ও জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে যৌথ অভিযান পরিচালনা করছে। আমি ও পুলিশ সুপার নিজে এতে নেতৃত্ব দিচ্ছি। আমরা সড়কে এই ঈদ উপলক্ষে দুর্ঘটনা এড়াতে এবং মানুষ সচেতন করতে মূলত এটা পরিচালনা করছি।

পুলিশ সুপার আর এম ফয়জুর রহমান রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে বলেন, জেলা পুলিশ অনেক আগেই নো হেলমেট, ফুয়েল কার্যক্রম চালু করেছে। যারফলে দুর্ঘটনা কমেছে। এছাড়া কোরবানি ঈদ উপলক্ষে টাস্কফোর্স ও ভিজিল্যান্স টিম তরুণ সমাজসহ সব চালকদের, বিশেষ যারা বাইকার তাদের সতর্ক করতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করছে। আমি ও ডিসি মহোদয় এটার নেতৃত্ব দিচ্ছি। আমরাও নিজেরাও অভিযানে থাকছি। ঈদ উপলক্ষে আমাদের বিশেষ এই অভিযান চারদিন চলবে।

অভিযানে ট্রাফিক পুলিশের পাশাপাশি, ডিবি পুলিশ ও ৬ বিজিবির বেশ কয়েকটি ইউনিট অংশ নেয়। এছাড়া কয়েকজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অভিযানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

জনপ্রিয়

অনির্দিষ্টকালের জন্য দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা

চুয়াডাঙ্গায় ১ ঘন্টার বিশেষ অভিযানে ১৫ জনকে জরিমানা

প্রকাশের সময় : ০৫:১২:০৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪

আজ রবিবার (১৬ জুন) দুপুরে জেলা শহরের শহীদ হাসান চত্বর, কোর্ট মোড় ও কবরী রোডসহ গুরুত্বপূর্ণ সব পয়েন্টে চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক ড. কিসিঞ্জার চাকমা ও পুলিশ সুপার আর এম ফয়জুর রহমানের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালিত হয়। ১ ঘন্টার অভিযানে ১৫ জনকে হেলমেট, সঠিক কাগজপত্র না থাকাসহ বিভিন্ন অপরাধে ২১ হাজার জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

জেলা প্রশাসক ড কিসিঞ্জার চাকমা রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে বলেন, পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক টাস্কফোর্স ও ভিজিল্যান্স টিম জেলা পুলিশ ও জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে যৌথ অভিযান পরিচালনা করছে। আমি ও পুলিশ সুপার নিজে এতে নেতৃত্ব দিচ্ছি। আমরা সড়কে এই ঈদ উপলক্ষে দুর্ঘটনা এড়াতে এবং মানুষ সচেতন করতে মূলত এটা পরিচালনা করছি।

পুলিশ সুপার আর এম ফয়জুর রহমান রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে বলেন, জেলা পুলিশ অনেক আগেই নো হেলমেট, ফুয়েল কার্যক্রম চালু করেছে। যারফলে দুর্ঘটনা কমেছে। এছাড়া কোরবানি ঈদ উপলক্ষে টাস্কফোর্স ও ভিজিল্যান্স টিম তরুণ সমাজসহ সব চালকদের, বিশেষ যারা বাইকার তাদের সতর্ক করতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করছে। আমি ও ডিসি মহোদয় এটার নেতৃত্ব দিচ্ছি। আমরাও নিজেরাও অভিযানে থাকছি। ঈদ উপলক্ষে আমাদের বিশেষ এই অভিযান চারদিন চলবে।

অভিযানে ট্রাফিক পুলিশের পাশাপাশি, ডিবি পুলিশ ও ৬ বিজিবির বেশ কয়েকটি ইউনিট অংশ নেয়। এছাড়া কয়েকজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অভিযানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।