০৬:১৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আলমডাঙ্গায় বাস-মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে ঝরল গরু ব্যবসায়ীর প্রাণ

নিহত রাজিবুল উপজেলার হারদি ইউনিয়নের থানাপাড়ার বুদো মিয়ার ছেলে। তিনি পেশায় একজন গরু ব্যবসায়ী ছিলেন।

নিহত রাজিবুল ইসলামের বন্ধু ইসতিয়াক মিজান রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে বলেন, সকালে গরু কেনার উদ্দেশ্য মোটরসাইকেলযোগে পাশ্ববর্তী হাটুভাঙ্গায় যাচ্ছিলেন। এসময় কুয়াতলা নামকস্থানে পৌছালে যাত্রীবাহী বাস এসবি পরিবহনের ((ঢাকা মেট্রো-১৪-৮৯৯৮) সঙ্গে সংঘর্ষ হয়।

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে (হারদি হাসপাতাল) ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসক তাকে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। পরে কুষ্টিয়ায় যাওয়ার পথেই তাঁর মৃত্যু হয়। তার দুটি সন্তান রয়েছে বলে জানান তিনি।

আলমডাঙ্গা থানা পুলিশের পরিদর্শক (ওসি) শেখ আব্দুল গণি রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে বলেন, যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে সংঘর্ষে মোটরসাইকেল চালক নিহত হয়েছেন বলে জেনেছি। মরদেহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রাখা আছে। উর্ধ্বতন কর্মকতাদের নির্দেশনা অনুযায়ী পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

জনপ্রিয়

আলমডাঙ্গায় বাস-মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে ঝরল গরু ব্যবসায়ীর প্রাণ

প্রকাশের সময় : ১২:০৫:৫৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪

নিহত রাজিবুল উপজেলার হারদি ইউনিয়নের থানাপাড়ার বুদো মিয়ার ছেলে। তিনি পেশায় একজন গরু ব্যবসায়ী ছিলেন।

নিহত রাজিবুল ইসলামের বন্ধু ইসতিয়াক মিজান রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে বলেন, সকালে গরু কেনার উদ্দেশ্য মোটরসাইকেলযোগে পাশ্ববর্তী হাটুভাঙ্গায় যাচ্ছিলেন। এসময় কুয়াতলা নামকস্থানে পৌছালে যাত্রীবাহী বাস এসবি পরিবহনের ((ঢাকা মেট্রো-১৪-৮৯৯৮) সঙ্গে সংঘর্ষ হয়।

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে (হারদি হাসপাতাল) ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসক তাকে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। পরে কুষ্টিয়ায় যাওয়ার পথেই তাঁর মৃত্যু হয়। তার দুটি সন্তান রয়েছে বলে জানান তিনি।

আলমডাঙ্গা থানা পুলিশের পরিদর্শক (ওসি) শেখ আব্দুল গণি রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে বলেন, যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে সংঘর্ষে মোটরসাইকেল চালক নিহত হয়েছেন বলে জেনেছি। মরদেহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রাখা আছে। উর্ধ্বতন কর্মকতাদের নির্দেশনা অনুযায়ী পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।