০৫:২২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

(ভিডিও) জীবননগরের উথলী ইউপি চেয়ারম্যানের উপর হামলা, হেলিকপ্টারে নেয়া হলো ঢাকায়

আজ মঙ্গলবার (২৮ মে) সকালে জীবননগর উপজেলার উথলী ইউনিয়নের মোল্লা বাড়ি এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।

এঘটনার পর তিনি নিজেই আহত অবস্থায় উথলী ইউনিয়ন পরিষদে চলে আসেন। সেখানে ইউপি সদস্যরা তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। অবস্থায় অবনতি হলে চিকিৎসক ঢাকাতে নেয়ার পরামর্শ দেন। এরপর অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে মুমূর্ষু অবস্থায় বেলা ২টা ৪০ মিনিটে বেসরকারি এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় জাতীয় বক্ষব্যাধি ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।।

এদিকে খবর পেয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ছুটে আসেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজগার টগর এমপি, চুয়াডাঙ্গার পুলিশ সুপার আর এম ফয়জুর রহমান, দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আলী মুনছুর বাবু এবং আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা।

দলীয় নেতাকর্মীরা রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে জানান, কি কারণে হামলার ঘটনা ঘটেছে তা পুলিশের তদন্তে প্রকৃত ঘটনা বেরিয়ে আসবে। তবে ধারণা করা হচ্ছে এটি পরিকল্পিতভাবে ঘটানো হয়েছে। এছাড়া গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে ২০২৩ সালের ১৮ ডিসেম্বর রাতে মোটরসাইকেলযোগে বাড়িতে ফেরার পথে লাঠিসোটা নিয়ে দুর্বৃত্তরা তার উপর হামলা চালায়। এতে তিনি আহত হয়েছিলেন।

ছবি – উথলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উথলী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হান্নান

তারা জানান, সকালে দর্শনা থেকে বাজার করে মোটরসাইকেলযোগে নিজ বাড়ি ফিরছিলেন। উথলী মোল্লা বাড়ি এলাকায় পৌঁছালে হেলমেট পরা দুর্বৃত্তরা মোটরসাইকেলে এসে তাঁকে পেছন থেকে ধারল অস্ত্র দিয়ে পিঠে আঘাত করেন। রক্তাক্ত অবস্থায় নিজেই মোটরসাইকেল চালিয়ে উথলী ইউনিয়ন পরিষদে আসেন। পরে তাঁকে উদ্ধার করে দ্রুত চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য জাতীয় বক্ষব্যাধি ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জুনিয়র কনস্যাল্টেন্ট (সার্জারি) ডা. এহসানুল হক তন্ময় রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে বলেন, ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তার বাম ফুসফুস ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। আমরা প্রথমিক চিকিৎসা দিয়েছি। উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কিংবা জাতীয় বক্ষব্যাধি ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে নেয়ার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

পুলিশ সুপার আর এম ফয়জুর রহমান রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে বলেন, রহস্য উদ্‌ঘাটনে পুলিশের পাঁচটি ইউনিট কাজ করছে।

চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজগার টগর এমপি রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে বলেন, ঘটনার পর আব্দুল হান্নান আমাকে ফোনে জানিয়েছেন, ‘ আমার উপর হামলা হয়েছে, আমি হয়তো বাচব না’ হাসপাতালে যাওয়ার জন্য একটি গাড়ির ব্যবস্থা করেন। আমি দ্রুত গাড়ীর ব্যবস্থা করেছি। আমি নিজেও হাসপাতালে এসেছি।

তিনি আরও বলেন, গত সংসদ নির্বাচনের আগে তার উপর হামলার ঘটনা ঘটেছিল। সেই সময় গুরুত্ব দেয়নি। এবার মনে হচ্ছে এটা পরিকল্পিতভাবে হামলার ঘটনা। বিষয়টি গুরত্বসহকারে দেখতে হবে।

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

জনপ্রিয়

অনির্দিষ্টকালের জন্য দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা

(ভিডিও) জীবননগরের উথলী ইউপি চেয়ারম্যানের উপর হামলা, হেলিকপ্টারে নেয়া হলো ঢাকায়

প্রকাশের সময় : ০৩:৫৬:০০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪

আজ মঙ্গলবার (২৮ মে) সকালে জীবননগর উপজেলার উথলী ইউনিয়নের মোল্লা বাড়ি এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।

এঘটনার পর তিনি নিজেই আহত অবস্থায় উথলী ইউনিয়ন পরিষদে চলে আসেন। সেখানে ইউপি সদস্যরা তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। অবস্থায় অবনতি হলে চিকিৎসক ঢাকাতে নেয়ার পরামর্শ দেন। এরপর অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে মুমূর্ষু অবস্থায় বেলা ২টা ৪০ মিনিটে বেসরকারি এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় জাতীয় বক্ষব্যাধি ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।।

এদিকে খবর পেয়ে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ছুটে আসেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজগার টগর এমপি, চুয়াডাঙ্গার পুলিশ সুপার আর এম ফয়জুর রহমান, দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আলী মুনছুর বাবু এবং আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা।

দলীয় নেতাকর্মীরা রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে জানান, কি কারণে হামলার ঘটনা ঘটেছে তা পুলিশের তদন্তে প্রকৃত ঘটনা বেরিয়ে আসবে। তবে ধারণা করা হচ্ছে এটি পরিকল্পিতভাবে ঘটানো হয়েছে। এছাড়া গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে ২০২৩ সালের ১৮ ডিসেম্বর রাতে মোটরসাইকেলযোগে বাড়িতে ফেরার পথে লাঠিসোটা নিয়ে দুর্বৃত্তরা তার উপর হামলা চালায়। এতে তিনি আহত হয়েছিলেন।

ছবি – উথলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উথলী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হান্নান

তারা জানান, সকালে দর্শনা থেকে বাজার করে মোটরসাইকেলযোগে নিজ বাড়ি ফিরছিলেন। উথলী মোল্লা বাড়ি এলাকায় পৌঁছালে হেলমেট পরা দুর্বৃত্তরা মোটরসাইকেলে এসে তাঁকে পেছন থেকে ধারল অস্ত্র দিয়ে পিঠে আঘাত করেন। রক্তাক্ত অবস্থায় নিজেই মোটরসাইকেল চালিয়ে উথলী ইউনিয়ন পরিষদে আসেন। পরে তাঁকে উদ্ধার করে দ্রুত চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য জাতীয় বক্ষব্যাধি ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জুনিয়র কনস্যাল্টেন্ট (সার্জারি) ডা. এহসানুল হক তন্ময় রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে বলেন, ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তার বাম ফুসফুস ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। আমরা প্রথমিক চিকিৎসা দিয়েছি। উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কিংবা জাতীয় বক্ষব্যাধি ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে নেয়ার জন্য পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

পুলিশ সুপার আর এম ফয়জুর রহমান রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে বলেন, রহস্য উদ্‌ঘাটনে পুলিশের পাঁচটি ইউনিট কাজ করছে।

চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজগার টগর এমপি রেডিও চুয়াডাঙ্গাকে বলেন, ঘটনার পর আব্দুল হান্নান আমাকে ফোনে জানিয়েছেন, ‘ আমার উপর হামলা হয়েছে, আমি হয়তো বাচব না’ হাসপাতালে যাওয়ার জন্য একটি গাড়ির ব্যবস্থা করেন। আমি দ্রুত গাড়ীর ব্যবস্থা করেছি। আমি নিজেও হাসপাতালে এসেছি।

তিনি আরও বলেন, গত সংসদ নির্বাচনের আগে তার উপর হামলার ঘটনা ঘটেছিল। সেই সময় গুরুত্ব দেয়নি। এবার মনে হচ্ছে এটা পরিকল্পিতভাবে হামলার ঘটনা। বিষয়টি গুরত্বসহকারে দেখতে হবে।