০৫:২৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

থানার মধ্যে থেকে চুরি হয়ে গেল অটোরিকসা

ফাইল ছবি

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল থানার ভেতর থেকে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চুরির ঘটনা ঘটেছে। রোববার (৩ মার্চ) রাত সাড়ে ৮টার দিকে চুরির এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অটোরিকশাচালক আব্দুস সাত্তার ও ঘাটাইল থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) সজল খান। এঘটনায় থানার দায়িত্বরত এক পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

চুরি যাওয়া অটোরিকশার মালিক আব্দুস সাত্তারের বাড়ি মধুপুর ও ঘাটাইল উপজেলার গাংগাইর গ্রামে।

তিনি জানান, রোববার সন্ধ্যায় থানার পরিদর্শক চেয়ারের লোহার ঝালাই খুলে যাওয়ায় তা মেরামত করতে ঘাটাইল বাসস্ট্যান্ডে নিয়ে আসেন। চেয়ার মেরামত করে এশার নামাজের পর অটোরিকশা নিয়ে থানায় যান। অটোরিকশাটি রাখেন থানার ভেতর জাতীয় পতাকা বাঁধা খুঁটির পাশে। কক্ষে চেয়ার পৌঁছে দিয়ে থানার ভেতরই খোঁজ নিতে যান পুলিশের খাবার রান্নার দায়িত্বে থাকা বাবুর্চি আব্দুস সালামের। আব্দুস সালামের বাড়ি ধনবাড়ি উপজেলায়। ঘাটাইল উপজেলার শাহপুর এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বাস করেন তিনি। বাড়ি ফেরার পথে প্রতিদিন সালামকে সঙ্গে নিয়ে ফিরেন তিনি।

সাত্তার বলেন, ‘এ সময় দেখা হয় মিজান স্যারের (পুলিশের সহকারী উপরিদর্শক) সঙ্গে। স্যার পেয়ারা কিনেছেন। সেই পেয়ারা অটোরিকশা দিয়ে বাসায় পৌঁছে দিতে বলেন। এসে দেখি অটোরিকশাটি নেই। রাতেই বিষয়টি জানানো হয় পুলিশকে। পুলিশ তাকে জানিয়েছেন খোঁজাখুঁজি করা হচ্ছে, এখনও অটোরিকশাটি পাওয়া যায়নি।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ঘাটাইল থানা পুলিশের পরিদশর্ক (তদন্ত) সজল খান বলেন, অটোরিকশাচালক আব্দুস সাত্তার থানার কাজ করে দেন। চুরি যাওয়া অটোরিকশাটি খুঁজে বের করতে রোববার রাত থেকেই পুলিশ কাজ করছে। এ বিষয়ে থানায় কোনো লিখিত অভিযোগ হয়নি। তবে সাত্তারকে লিখিত অভিযোগ করতে বলেছি।

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

জনপ্রিয়

থানার মধ্যে থেকে চুরি হয়ে গেল অটোরিকসা

প্রকাশের সময় : ০৯:১৯:৪৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ মার্চ ২০২৪

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল থানার ভেতর থেকে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চুরির ঘটনা ঘটেছে। রোববার (৩ মার্চ) রাত সাড়ে ৮টার দিকে চুরির এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অটোরিকশাচালক আব্দুস সাত্তার ও ঘাটাইল থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) সজল খান। এঘটনায় থানার দায়িত্বরত এক পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

চুরি যাওয়া অটোরিকশার মালিক আব্দুস সাত্তারের বাড়ি মধুপুর ও ঘাটাইল উপজেলার গাংগাইর গ্রামে।

তিনি জানান, রোববার সন্ধ্যায় থানার পরিদর্শক চেয়ারের লোহার ঝালাই খুলে যাওয়ায় তা মেরামত করতে ঘাটাইল বাসস্ট্যান্ডে নিয়ে আসেন। চেয়ার মেরামত করে এশার নামাজের পর অটোরিকশা নিয়ে থানায় যান। অটোরিকশাটি রাখেন থানার ভেতর জাতীয় পতাকা বাঁধা খুঁটির পাশে। কক্ষে চেয়ার পৌঁছে দিয়ে থানার ভেতরই খোঁজ নিতে যান পুলিশের খাবার রান্নার দায়িত্বে থাকা বাবুর্চি আব্দুস সালামের। আব্দুস সালামের বাড়ি ধনবাড়ি উপজেলায়। ঘাটাইল উপজেলার শাহপুর এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বাস করেন তিনি। বাড়ি ফেরার পথে প্রতিদিন সালামকে সঙ্গে নিয়ে ফিরেন তিনি।

সাত্তার বলেন, ‘এ সময় দেখা হয় মিজান স্যারের (পুলিশের সহকারী উপরিদর্শক) সঙ্গে। স্যার পেয়ারা কিনেছেন। সেই পেয়ারা অটোরিকশা দিয়ে বাসায় পৌঁছে দিতে বলেন। এসে দেখি অটোরিকশাটি নেই। রাতেই বিষয়টি জানানো হয় পুলিশকে। পুলিশ তাকে জানিয়েছেন খোঁজাখুঁজি করা হচ্ছে, এখনও অটোরিকশাটি পাওয়া যায়নি।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ঘাটাইল থানা পুলিশের পরিদশর্ক (তদন্ত) সজল খান বলেন, অটোরিকশাচালক আব্দুস সাত্তার থানার কাজ করে দেন। চুরি যাওয়া অটোরিকশাটি খুঁজে বের করতে রোববার রাত থেকেই পুলিশ কাজ করছে। এ বিষয়ে থানায় কোনো লিখিত অভিযোগ হয়নি। তবে সাত্তারকে লিখিত অভিযোগ করতে বলেছি।